মচিমহার ৫ ডাক্তারসহ হাসপাতালের ১৪ জন করোনায় আক্রান্ত, জেলায় নতুন আক্রান্ত ৩৪

স্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৫ চিকিৎসক, নার্স, আয়া ও ক্লিনারসহ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ জন। মঙ্গলবার এ খবর ছড়িয়ে পড়লে পুরো হাসপাতাল জুড়ে কর্মরত, ভর্তিকৃত রোগী ও স্বজনরা আতঙ্কিত হন। এদিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের পিসিআর ল্যাবে মঙ্গলবার দুই ধাপে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষার মধ্যে নতুন ৩৪ জনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।

হাসপাতাল কর্তপক্ষের ধারণা, নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুড়ি থেকে করোনায় আক্রান্ত এক অন্ত:সত্তা নারী তথ্য গোপন করে মচিমহা’য় চিকিৎসাধীন থাকায় হাসপাতাল জুড়ে করোনা ছড়িয়েছে।

Dip Add

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের পিসিআর ল্যাবে মঙ্গলবার প্রথম দফায় ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলার ৯৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছিল, এরমধ্যে ২০ জনের করোনা পজিটিভ হয়। এদের মধ্যে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৪ জন, ফুলবাড়িয়ার একজন উপ-সহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার এবং নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুইজন চিকিৎসক ও জামালপুরের একজন চিকিৎসক রয়েছেন।

ময়মনসিংহের সিভিল সার্জন ডা. এবিএম মশিউল আলম জানান, নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুড়ি থেকে করোনায় আক্রান্ত এক অন্ত:সত্তা নারী তথ্য গোপন করে মেডিকেলে ভর্তি হয়। তার মাধ্যমেই হাসপাতালের ওয়ান স্টপ সার্ভিস, গাইনী বিভাগ, ডায়ালাইসিস বিভাগ ও আইসিইউতে কর্মরতদের মধ্যে করোনা ছড়িয়ে পড়ে।

জেলায় নতুন আক্রান্ত ৩৪

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের পিসিআর ল্যাবে মঙ্গলবার দুই ধাপে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষার মধ্যে ৩৪ জনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ১জনের বাড়ি টাঙ্গাইলে। ময়মনসিংহ বিভাগের আক্রান্তদের মধ্যে ময়মনসিংহ জেলার ২১জন ( ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৫ চিকিৎসক, নার্স, আয়া ও ক্লিনারসহ ১৪ জন, ময়মনসিংহ শহরের চড়পাড়ার ১জন, মুক্তাগাছার ২জন, হালুয়াঘাটের ১জন,  ফুলবাড়িয়ার একজন উপ-সহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার, ত্রিশালের ১জন), নেত্রকোনা জেলায় ৪জন(পূর্বধলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দুই ডাক্তারসহ ৪জন) ও জামালপুর জেলায় একজন ডাক্তারসহ ৭ জন ও শেরপুর জেলায় ১জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *