গাজীপুরে একই পরিবারের চারজনকে গলা কেটে হত্যা

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ শ্রীপুর উপজেলার আবদার এলাকায় একই পরিবারের চার জনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে পুলিশ তাদের মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহতরা হলেন- ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার গোলবাড়ী এলাকার কাজল মিয়ার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৪০), এবং তাদের দুই মেয়ে নূরা (১৬) ও হাওরিন (১১) এবং ছেলে ফাদিল (৭)। তারা গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার আবদার এলাকায় জমি ক্রয় করেন। বাড়ি বানানোর পর সেখানেই তারা বসবাস করে আসছিলেন।

Dip Add

স্থানীয় ইউপি সদস্য তারেক হাসান বাচ্চু জানান, প্রায় ১৫ থেকে ২০ বছর আগে ইন্দোনেশিয়ায় ছিল কাজল মিয়া। তখন ওই দেশের নাগরিক ফাতেমা আক্তারকে বিয়ে করে বাংলাদেশ নিয়ে আসেন। ওই বাড়িতেই বসবাস করে আসছিল তার স্ত্রী সন্তানেরা। কাজল মিয়া বর্তমানে মালয়েশিয়া প্রবাসী। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ির ভেতর গলাকাটা রক্তাক্ত তাদের চার জনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. লিয়াকত আলী বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটী ইউনিয়নের আবদার এলাকায় একই পরিবারের চারজনকে গলা কেটে হত্যা করেছে কে বা কারা। নিহতরা সম্পর্কে মা, ছেলে ও মেয়ে। বুধবার (২২ এপ্রিল) রাতে যেকোনো সময় এই হত্যাকাণ্ডটি ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। তবে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। মরদেহগুলো মর্গে পাঠানোর হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *