ত্রাণ বিতরণে দুর্নীতি করলে তাৎক্ষণিকভাবে শাস্তি: প্রধানমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিবেদকঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যে ত্রাণ বিতরণে কেউ দুর্নীতি করলে তাকে ক্ষমা করব না। যদি প্রয়োজন হয় সেখানে মোবাইল কোর্ট বসিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের শাস্তি দেয়া হবে। বিচার পরে দেখব।

রোববার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে বরিশাল ও খুলনা বিভাগের জেলাগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

Dip Add

তিনি বলেন, একটা দুর্যোগপূর্ণ অবস্থা চলছে। এই সময়ে মানুষকে সাহায্য দেয়ার জন্য আমরা যেই খাদ্যদ্রব্য দিচ্ছি সেখান থেকে কেউ যদি দুর্নীতি করার চেষ্টা করে তাহলে এটি কোনোদিন ক্ষমার যোগ্য না এবং আমরা ক্ষমা করব না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যাদের আমরা দায়িত্ব দিয়েছি তারা আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু তার মধ্যে এই সামান্য দুই-একটা ঘটনা আমাদের অত্যন্ত কষ্ট দেয়। এটা খুবই একটা ঘৃণ্য কাজ। এই ধরনের দুর্নীতি কোনো দিন বরদাস্ত করব না।

তিনি বলেন, চুরি করলে কেউ ছাড় পাবে না। আমি অত্যন্ত দুঃখিত যে এই ধরনের কয়েকটা খবর বেরিয়েছে। যারা ঘটিয়েছেন বা দুর্দশাগ্রস্ত মানুষকে দেয়ার জন্য যে খাদ্যশস্য দেয়া হয়েছে, যে চাল দেয়া হয়েছে সেখান থেকে যারা দুর্নীতি করার চেষ্টা করেছেন এবং কিছু ধরা পড়েছেন। আশা করি কেউ যদি এমন করেন সবাই ধরা পড়বেন। তাদের কিন্তু কোনো ক্ষমা নেই।

এ সময় এই সংকট মোকাবেলায় সবাইকে আন্তরিকতা নিয়ে কাজ করার নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে চলমান লকডাউনের মধ্যে অর্থনৈতিক সংকটে পড়া সবাইকে সহযোগিতার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান জানান সরকারপ্রধান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *